| বাংলার জন্য ক্লিক করুন

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   শেয়ার করুন
Share Button
   বিশেষ প্রতিবেদন
  একজন ক্রীড়া সংগঠক - দক্ষ রাজনীতিবিদ - সফল মেয়র বাগেরহাটের সর্বস্তরের জনপ্রিয় একটি নাম খাঁন হাবিবুর রহমান
  3, June, 2017, 1:34:42:AM


আজাদ রুহুল আমিন, ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি, বাগেরহাট
১৯৬৯-৭০ সালের প্রথম দিকে একজন তৃণমূল পর্যায়ে ফুটবল খেলোয়ার হিসেবে যিনি বাগেরহাট স্টেডিয়ামকে মাতিয়ে তুলে দর্শকদের মাঝে ঝড় তুলতেন। ফুটবলকে ভালোবেসে মাঠ কাঁপাতেন। এরপর তিনি খুলনা ঐতিহ্যবাহী আবাহনী ক্লাবে কৃতি খেলোয়ার হিসেবে ৭০ ও ৮০ এর দশক পর্যন্ত অত্যন্ত সুনামের সাথে ক্রীড়া নৈপূন্য প্রদর্শন করেন। বিন্দু বিন্দু করে তিনি ১৯৭৮ - ৭৯ সালে ঢাকা ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাবে প্রথম বিভাগ ফুটবল খেলার সৌভাগ্য অর্জন করেন। শেরে বাংলা কাপ জাতীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়ন খুলনা জেলা ফুটবল দলের সদস্য হিসেবে গৌরব অর্জন করেন। খাঁন হাবিবুর রহমান বাগেরহাট জেলার একজন দক্ষ ক্রীড়া সংগঠক হিসেবে নিজেকে সব সময় যুব সমাজকে মাদকমুক্ত ও সমাজের অবক্ষয় রোধকল্পে সুস্থ দেহ সুস্থ মন এ শ্লোগানকে বক্ষে ধারন করে শরীর চর্চা ও খেলাধুলায় তিনি অনন্য ভূমিকা রেখে চলেছেন।
বাগেরহাট পৌরসভার মেয়র খাঁন হাবিবুর রহমান পৌরসভার উদ্যোগে মাদকমুক্ত সমাজ গঠনের লক্ষ্যে ঞ-২০ আন্তঃ ওয়ার্ড ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। দড়াটানা ভৈরব নদীতে ঐতিহাসিক নৌকা বাইচ। প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ ২০১৬। হা-ডু-ডু প্রতিযোগীতা ২০১৬। ৩য় শহীদ শেখ আবু নাসের আন্তঃজেলা ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৭ সফলভাবে আয়োজন করেন। এছাড়া বছরের অধিকাংশ সময় জুড়ে বাগেরহাট স্টেডিয়াম এখন নবরুপায়নে শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়ামে ক্রিকেট, ফুটবল, ব্যাডমিন্টন, টেবিল টেনিস, ভলিবল প্রতিযোগীতা সহ খেলোয়ারদের যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে খান হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাগেরহাট জেলা ক্রীড়া সংস্থা একটি বৃহত্তর ইনস্টিটিউটে পূর্নতা লাভ করতে সক্ষম হয়েছে। এছাড়া অনুর্ধ্ব ১৪, ১৬ ও ১৮ বছর বয়সী তরুন শিক্ষার্থীদের নিয়ে নিয়মিত দক্ষ খেলোয়ার গড়ে তুলতে হাতে কলমে প্রশিক্ষন প্রাপ্ত হয়ে তারা ইতোমধ্যে জেলা, উপজেলা, জেলার বাইরে এবং দেশের বাইরেও দক্ষ খেলোয়ার হিসেবে সুনাম অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।
জাতীয় ক্রিকেটার রুবেল সহ অনেক তরুন খেলোয়ার যোগ্য হিসেবে খান হাবিবুর রহমানের পৃষ্টপোষকতায় দেশ বিদেশে সুনাম অর্জন করেছে। খান হাবিবুর রহমানের প্রিয় ক্লাব নাগেরবাজারের উন্মোচন ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা। তার নেতৃত্বে উন্মোচন ক্লাবের এক ঝাক তরুন খেলোয়ার বিভিন্ন সময়ে খেলায় নৈপুণ্যতা প্রদর্শন করে ট্রফি ছিনিয়ে আনে।
এছাড়া সর্বশেষ শেখ শহীদ আবু নাসের আন্তঃজেলা ফুটবল টুর্নামেন্টে পরপর তিনবার চ্যাম্পিয়ন হয়ে খেলার নৈপুন্যতার ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছে। জনাব খান হাবিবুর রহমান বাগেরহাট জেলা ফুটবল এ্যাসোসিয়োসনের সভাপতি। বাগেরহাট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ- সভাপতি। বাগেরহাট জেলা ক্রিকেট আম্প্যায়ার এন্ড স্কোরার এ্যাসোসিয়োসনের সভাপতি। তারই সুদক্ষ নেতৃত্বে বাগেরহাট স্টেডিয়ামকে এখন শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়াম নামাকরনে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. শ্রী বীরেন সিকদার এমপি শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়াম এবং নবনির্মিত প্যাভেলিয়ন ভবন গ্যালারী নামকরনে ভিত্তি ফলকের আনুষ্ঠানিক উদ্ভোধন করেন। এবং তিনি বাগেরহাট স্টেডিয়ামকে পূর্নাঙ্গ জাতীয় স্টেডিয়াম করার ঘোষনা দেন এবং একটি আধুনিক জিমন্যাশীয়াম নির্মান করার ঘোষনা প্রদান করেন। এরই ধারাবাহিকতায় মাননীয় সড়ক ও যোগাযোগ মন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের একই ঘোষনা দেন। এরই আলোকে বাগেরহাট হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়ামকে সম্প্রসারন গ্যালারী নির্মান, মাঠের সৌন্দর্য্য বিকাশ সাধন ও বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড বাস্তবায়নে ইতোমধ্যে ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ক্রীড়াই শক্তি ক্রীড়াই বল। গ্রীষ্ম, বর্ষা, শীত মৌসুম বছর জুড়েই বিভিন্ন খেলার আয়োজন বাগেরহাটের দর্শকদের মাতিয়ে তোলে। ক্রীড়াঙ্গনে ক্রীড়া সংগঠক জনাব খান হাবিবুর রহমানের খুব একান্ত কাছের মানুষ সাবেক কমিশনার এবং ক্রিকেট আম্প্যারার্স ও স্কোরার্স এ্যাসোসিয়েসনের খুনলা বিভাগীয় সাবেক নির্বাচিত সভাপতি এবং কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য ও বর্তমান বাগেরহাট জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য জনাব তানুজী নাগ মানসম্মত খেলাধুলায় অনুপ্রেরনা জোগান এবং তার সাফল্য জনক সার্বিক ক্রীড়াঙ্গনের নেতৃত্বকে ভূয়সী প্রশংসা করেন। জনাব খান হাবিবুর রহমান জীবনের প্রথম থেকে অধ্যাবধি হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়াম ও খেলা তার প্রান ও ভালবাসা। এর মধ্যেই তিনি নিজেকে এখনও একজন প্রানবন্ত খেলোয়ার হিসেবে সময় পেলেই তিনি ফুটবল নিয়ে তার সহকর্মীদের নিয়ে মাঠে এখনও সৌখিন ও সৌজন্য খেলার আয়োজন করে থাকেন।
বাগেরহাটের রাজনৈতিক অঙ্গনে খান হাবিবুর রহমান তেজদীপ্ত সাহসি প্রতিবাদী বঙ্গবন্ধু আদর্শের রাজপথের সৈনিক হিসেবে তিনি কখনও কোন দলের সাথে আপোষ করেন নি। তাই বাগেরহাটে হাবিবুর রহমান হাবি খাঁ বলতে আওয়ামীলীগের একজনকেই বোঝায়। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ও চেতনায় বিশ্বাসী আওয়ামীলীগের সহযোগী যুবলীগের কর্মী পরবর্তীতে বাগেরহাট জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক এবং পরবর্তীতে সম্মেলনের মাধ্যমে বাগেরহাট জেলা যুবলীগের নির্বাচিত দীর্ঘকালীন সংগ্রামী সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে সাহসি ভূমিকা রাখেন। জামায়াত বিএনপি জোট সরকার এবং ১৯৯১ এর বিএনপি সরকারের সময় একাধিকবার জেল জুলুম নির্যাতনের স্বীকার হয়েও বঙ্গবন্ধুর নীতি ও আদর্শ হতে বিচ্যুত হন নি। তিনি বর্তমান বাগেরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সংগ্রামী যুগ্ন সাধারন সম্পাদক হিসেবে নেতৃত্ব প্রদান করছেন। তার হাতে অনেক ছাত্রলীগ যুবলীগ কর্মী বর্তমান ক্ষমতাসীন জেলা আওয়ামীলীগের বিভিন্ন পদে আসীন।
সকল আন্দোলন সংগ্রাম কর্মসূচীতে তিনি কখনও পিছিয়ে ছিলেন না বলেই বর্তমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার অত্যন্ত স্নেহভাজন এবং অতি পরিচিত মুখ। পদ্মার এপাড়ের জননন্দিত বাগেরহাটের উন্নয়নের রুপকার জনাব শেখব হেলাল উদ্দিন এমপি। বাগেরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সংগ্রামী সভাপতি প্রাক্তনমন্ত্রী আলহাজ্ব ডা. মোজাম্মেল হোসেন এমপি। বাগেরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সংগ্রামী সাধারন সম্পাদক বাগেরহাট জেলা পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব কামরুজ্জামান টুকু। খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় সাবেক মেয়র, প্রাক্তনমন্ত্রী ও মোংলা রামপালের আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক এমপির অত্যন্ত আস্থাভাজন।
১৯৮৮ সাল থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত খান হাবিবুর রহমান বাগেরহাট পৌরসভার বৃহত্তর ৭,৮,৯ দু`বার বিপুল ভোটে কমিশনার নির্বাচিত হন। তিনি সাধারন মানুষের দ্বারে দ্বারে তাদের সুখ দুঃখের সমব্যাথী হয়েছেন। যার সফলতা হিসেবে ২০০৪ সালে বাগেরহাট পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালে সরকার কর্তৃক চেয়ারম্যান পদ বাতিল করে মেয়র হিসেবে রুপদান করেন। ২০১১ সাল থেকে দ্বিতীয় মেয়াদ এবং ২০১৬ সালে তৃতীয় মেয়াদে জাতীয় নৌকা প্রতীক পেয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনিত প্রার্থী হিসেবে মেয়র নির্বাচিত হন। তার উল্লেখযোগ্য কর্মকান্ডের মধ্যে বাগেরহাটের ঐতিহ্যবাহী খানজাহান আলী (রহঃ) মাজারের প্রবেশ পথে টুওয়ে গেট যার ষাট শতাংশ কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। বাগেরহাট পৌরসভার নিজস্ব তহবিল কর্তৃক এ নির্মান কাজে ব্যায় হবে দু`কোটি টাকা। এটি দেশ বিদেশের পর্যাটকদের দৃষ্টি আকর্ষন করবে। বাগেরহাট পৌরসভা কর্তৃক বাগেরহাট পৌর এলাকাকে ২৯.১১.২০১৬ আনুষ্ঠানিকভাবে ভিক্ষুকমুক্ত ঘোষনা করা হয়। মেয়র খান হাবিবুর রহমান নিজস্ব তহবিল কর্তৃক অর্থ এবং পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারীদের তিনদিনের বেতন কর্তন করে এই ভিক্ষুক ফান্ড তৈরী করেন। (ঈঞঊওচ) উপকূলীয় শহর পরিবেশ অবোকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে দশানী পৌর শিশু পার্ক কে আরো আধুনিকায়ন এবং চিত্ত বিনোদনের উপযোগী করে তোলা এবং বাসাবাটি ভৈরব নদীর তীরে বাগেরহাট পৌর পার্ক ঈদগাহ কে পূর্নাঙ্গ রুপে গড়ে তোলার প্রস্তুতি চলছে। এছাড়া খানজাহান আলী দরগাহ, মহাসড়ক ও শহররক্ষাবাধ জুড়ে বৈদ্যুতিক আলোর ব্যাবস্থা নিশ্চিত করেছেন। বাগেরহাট সদর হাসপাতাল ও দরগাহ ক্যাম্পাস পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে বাগেরহাট পৌরসভা নিয়মিত জনবল ও অর্থ ব্যয় করছে। বাগেরহাট শহররক্ষাবাধের পূর্ব এবং দক্ষিনে পুটিমারি খাল পর্যন্ত ৪০টি স্লুইচ গেট মেরামত আধুনিকায়ন, জলাবদ্ধতা নিরসন বাস্তবায়নের কাজ হাতে নেয়া হয়েছে। এছাড়া বর্ষা মৌসুমে পৌরসভার তদারকিতে সামাজিক বনায়ন বিভাগ শহররক্ষাবাধের দু`কিলোমিটার জুড়ে বনায়ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করবে। দড়াটানা থেকে মুনিগঞ্জ পর্যন্ত শহররক্ষাবাধ মেরামত কল্পে ইতোমধ্যে টেন্ডার ও বাগেরহাট পৌরসভার নিজস্ব তহবিল কর্তৃক ৯টি প্যাকেজে ২৯টি রাস্তার সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। পৌর সার্ভিস সেন্টার নির্মান কাজ চলমান রয়েছে। এছাড়া ভিআইপি, মিঠাপুকুর ও রেললাইনের রাস্তাটি নির্মান কাজে প্রস্তুতি চলছে। বাগেরহাট পৌরসভার উদ্যোগে সোনাতলায় সোনাতলা ফার্মে শহরের ময়লা আবর্জনা ও বর্জ্য থেকে ডধংঃব ঞড় ইরড়মধং ঢ়ষধহঃ এর কাজের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। বাগেরহাট পৌরসভার উদ্যোগে নিজস্ব অর্থায়নে দৃষ্টিনন্দন খারদ্বার জামে মসজিদ নির্মান করা হয়েছে। খুলনা বিভাগের বাগেরহাট পৌরসভার অনুকূলে একনেকের বৈঠকে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নে ১২৫ কোটি টাকা এবং বাগেরহাট পৌরসভার পানি সরবরাহ এনভায়রনমেন্টাল সেনিটেশন ব্যাবস্থার উন্নতিকরন প্রকল্পে ৫০ কোটি টাকা অনুমোদিত হওয়ায় বাগেরহাটবাসীর পানির সমস্যা অচিরেই দূর হবে। থাইল্যান্ডের ব্যাংককে এশিয়া আরবান রিজিলিয়্যান্স ফাইনান্স ফোরাম ২০১৭ অর্থ্যাৎ এশীয়া অঞ্চলের নগরায়নকে স্থিতিশীল অবস্থা ফিরিয়ে নানা বিষয়ক অর্থনৈতিক ফোরামে বাগেরহাট পৌরসভার প্রতিনিধি এ ফোরামে যোগ দিয়ে বৈশ্বিক অবস্থা হ্রাস করনে পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে স্ব - স্ব ক্ষেত্রে অর্থ ছাড়ের ব্যাপারে প্রতিনিধিত্ব করেন। সামাজিক ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানে বাংলাদেশ সরকারের সোস্যাল মিডিয়া ইনোভেশন এ্যাওয়ার্ডটি বাগেরহাট পৌরসভা লাভ করেন। বাগেরহাট পৌরসভার মেয়র জনাব খান হাবিবুর রহমান বাগেরহাট বহুমুখী কলেজিয়েট স্কুল, দশানী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, হাড়িখালী সরকারী প্রাথমক বিদ্যালয়, তার নিজ এলাকা নাগেরবাজার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি। এছাড়া বাগেরহাট পৌরসভার মধ্যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের গুরুত্বপূর্ন তদারকি শিক্ষার্থীদের পোশাক বিতরন কার্যক্রম অব্যহত রেখেছেন। আর্ত মানবতার সেবায় নিয়োজিত বাগেরহাট রেডক্রিসেন্ট ইউনিটের ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।
১৯৫৫ সালে খারদ্বারের সম্ভ্রান্ত খান পরিবারে জনাব খান হাবিবুর রহমান জন্মগ্রহন করেন। তিনি এক পূত্র ও দু`কন্যার জনক। তার প্রিয় শখ বড়শি দিয়ে মাছ ধরা। সেটি সমুদ্র নয় নদীও নয়। এটি পুকুর, দীঘি, লেক অথবা বিল বা বদ্ধ জলাশয়।
রাজনীতির বলায়ে গড়ে ওঠা ত্যাগী কর্মী থেকে জেলার সবচেয়ে বড় শায়ত্ব শাসিত প্রতিষ্ঠান প্রথম শ্রেনীর বাগেরহাট পৌরসভার বার বার নির্বাচিত পৌর মেয়র হওয়ার গৌরব অর্জন রাশি আর ভাগ্য দিগন্ত জোড়া কপালে রাজ টিকা পরিহিত জনপ্রতিনিধি জনাব খান হাবিবুর রহমান একটি নাম একটি ইতিহাস। একটি উন্নয়নের ধারা পিছু হটবে না জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ। উন্নয়নের রোল মডেল এ এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ আরো বহুদূর।
লেখকঃ ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি, মানবাধিকার খবর।
বাগেরহাট প্রতিনিধি, সময় নিউজ।
সাবেক জেলা প্রতিনিধি, বিটিভি ও চ্যালেন ওয়ান।
সাবেক সাধারন সম্পাদক, বাগেরহাট প্রেসক্লাব।



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 294        
   আপনার মতামত দিন
     বিশেষ প্রতিবেদন
সুশাসন ও জবাবদিহিতার চরম অভাব মানুষ হত্যা ও পরিবহনের নৈরাজ্য, কেরে নিচ্ছে নাগরিক অধিকার
.............................................................................................
ইমতিয়াজ বুলবুলের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
.............................................................................................
কৃষি মাশরুম চাষ : ঘরে বসে আয়
.............................................................................................
পেঁপে চাষ পদ্ধতি
.............................................................................................
ভারতের পাচারকৃত তিন কিশোর দেশে ফেরার অপেক্ষায়
.............................................................................................
স্থগিতই থাকছে খালেদার জামিন
.............................................................................................
বিদায় বীরমাতা ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী
.............................................................................................
পরকিয়ায় সংসার ভাংলো পারভিনের. স্বামী জেল হাজতে
.............................................................................................
দুরমুজখালী সীমান্তে উদ্ধার হওয়া লাশ নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য
.............................................................................................
ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বিদ্যুৎ লাইন সংযোগ জটিলতার অবসান হলো
.............................................................................................
থাই পেয়ারার চাষ পদ্ধতি ও রোগ বালাই
.............................................................................................
৫৭ ধারা বাতিল ॥ আসছে ভয়ঙ্কর ৩২ ধারা
.............................................................................................
মানবাধিকার খবর’র উদ্যোগ
.............................................................................................
১০ ডিসেম্বর বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পালিত
.............................................................................................
১০ ডিসেম্বর বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পালিত
.............................................................................................
নবাব ফয়জুন্নেছা চৌধুরানী সমাজ ও নারী উন্নয়নের কান্ডারী ছিলেন
.............................................................................................
অবক্ষয় ঠেকাতে মানবিকতার চর্চা অপরিহার্য
.............................................................................................
গ্রাফিক্স ডিজাইনার তারেকের অকাল মৃত্যু
.............................................................................................
বিশ্বমানবাধিকার আজ কোথায়?
.............................................................................................
লংগদুতে আদিবাসীদের ওপর হামলার বিচার নিশ্চিত করতে হবে
.............................................................................................
কৃষি উন্নয়নে অবদানে বাকৃবিতে ১১ ব্যক্তিকে সংবর্ধনা
.............................................................................................
বামাফা’র জঙ্গীবাদ সন্ত্রাসবাদ ও মাদক বিরোধী সেমিনার অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
খাদে ভরা স্বর্ণ ব্যবসা
.............................................................................................
একজন ক্রীড়া সংগঠক - দক্ষ রাজনীতিবিদ - সফল মেয়র বাগেরহাটের সর্বস্তরের জনপ্রিয় একটি নাম খাঁন হাবিবুর রহমান
.............................................................................................
মানবাধিকার খবরের অনুসন্ধানী প্রতিবেদন মায়ের কাছে ফিরেছে ভারতীয় কিশোরী বৈশাখী
.............................................................................................
বাবা-মেয়ের আত্মহত্যা এ দায় কার?
.............................................................................................
পরিবারের সাত সদস্য পাগল।
.............................................................................................
মাস্তান প্রকৃতির লোক রাখা হচ্ছে পরিবহনে চরম ভোগান্তিতে যাত্রীরা
.............................................................................................
নারীর মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় যত্নবান হতে হবে : হেলেনা জাহাঙ্গীর
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটি: ১৯ ফেব্রুয়ারি তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ
.............................................................................................
মানবাধিকার খবরের উদ্যোগ ভারত থেকে দেশে ফিরছেন দুই কিশোর এক নারী
.............................................................................................
দেশ ও মানবতার কল্যাণে কার্যকরী ব্যবস্থা জরুরী
.............................................................................................
সন্ত্রাসী-চাঁদাবাজ, অপপ্রচার ও কুচক্রের শিকার
.............................................................................................
সংকট উত্তরণের উপায় কি নেই? জঙ্গিবাদ : মানবাধিকারের উপর চরম হুমকি
.............................................................................................
মসজিদের আর্থিক ‘কর্তৃত্ব পেতে’ পুরান ঢাকায় দু’বছরের পরিকল্পনায় মুয়াজ্জিন খুন
.............................................................................................
আমি সবার প্রেসিডেন্ট
.............................................................................................
যুক্তরাজ্যের বার্ষিক মানবাধিকার প্রতিবেদন বাংলাদেশসহ ৩০টি দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি উদ্বেগজনক
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

Editor & Publisher: Rtn. Md Reaz Uddin
Corporate Office
53,Modern mansion(8th floor),Motijheel C/A, Dhaka
E-mail:manabadhikarkhabar34@gmail.com,manabadhikarkhabar34@yahoo.com,
Tel:+88-02-9585139
Mobile: +8801978882223 Fax: +88-02-9585140
    2015 @ All Right Reserved By manabadhikarkhabar.com    সম্পাদকীয়    Adviser List

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]