| বাংলার জন্য ক্লিক করুন

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   শেয়ার করুন
Share Button
   স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা
  সুস্থ রাখবে যেসব খাবার!
  11, January, 2018, 11:02:32:PM

আমরা দৈহিক শক্তি বৃদ্ধির জন্যে কতকিছুই না খাই। তবে দৈহিক শক্তি বৃদ্ধির জন্যে সব খাবারে পরিমিত পুষ্টিগুন থাকে না। বিবাহিত জীবনে মিলনে ফিট থাকতে হলে আপনাকে  দৈনন্দিন খাবারের প্রতি পূর্ণ মনোযোগী হতে হবে। কারণ সুখী দাম্পত্য জীবনের জন্য স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ভালো বোঝাপড়া থাকার পাশাপাশি দরকার স্বাস্থ্যকর দৈহিক সম্পর্ক। অথচ প্রায়ই দেখা যায়, দৈহিক দুর্বলতার কারণে সংসারে অশান্তি হয়, এমনকি বিচ্ছেদ পর্যন্ত হয়। তাই আগে থেকে সতর্ক থাকলেও এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি নাও হতে পারেন আপনি। আপনার যৌন শক্তি বৃদ্ধির জন্য কোনো প্রকার ওষুধের প্রয়োজন নেই, তার জন্য দৈনন্দিন পুষ্টিকর খাবার দাবারই যথেষ্ট। আপনার খাবার  মেনুতে নিয়মিত দুধ, ডিম এবং ম ধু রাখুন আর নিয়মতান্ত্রিক জীবন যাপন করুন, তাহলে  দৈহিক ( যৌন) দুর্বলতায় ভুগবেন না।
১. ডিম: দৈহিক দুর্বলতা দূর করতে ও উত্তেজনা বাড়াতে এক অসাধারণ খাবার ডিম। প্রতিদিন সকালে, না পারেন সপ্তাহে অন্তত ৫ দিন ১টি করে ডিম সিদ্ধ করে খান। এতে আপনার যৌন দুর্বলতার সমাধান হবে।
২. দুধ: যেসব খাবারে বেশি পরিমাণ প্রাণিজ-ফ্যাট আছে এমন প্রাকৃতিক খাদ্য আপনার যৌনজীবনের উন্নতি ঘটায়। যেমন, খাঁটি দুধ, দুধের সর, মাখন ইত্যাদি। বেশিরভাগ মানুষই ফ্যাট জাতীয় খাবার এডিয়ে চলতে চায়। কিন্তু আপনি যদি শরীরে সেক্স হরমোন তৈরি হওয়ার পরিমাণ বাড়াতে চান তাহলে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট জাতীয় খাবারের দরকার। তবে সবগুলোকে হতে হবে প্রাকৃতিক এবং স্যাচুরেটেড ফ্যাট।
৩. মধু: দৈহিক দুর্বলতার সমাধানের মধুর গুণের কথা সবারই কম-বেশি জানা। তাই  দৈহিক শক্তি বাড়াতে প্রতি সপ্তাহে অন্তত ৩/৪ দিন ১ গ্লøাস গরম পানিতে ১ চামচ খাঁটি মধু মিশিয়ে পান করুন।
৪. রসুন: দৈহিক সমস্যা থাকলে এখনই নিয় মিত রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। স্মরণাতীতকাল থেকেই নারী পুরুষ উভয়েরই  দৈহিক উদ্দীপনা বাড়াতে এবং জননাঙ্গকে পূর্ণ সক্রিয় রাখতে রসুনের পুষ্টিগুণের কার্যকারিতা সর্বজনস্বীকৃত। রসুনে রয়েছে এলিসিন নামের উপাদান যা দৈহিক ইন্দ্রিয়গুলোতে রক্তের প্রবাহ বাড়িয়েড দেয়।
৫. কফি: কফি আপনার মিলনের ইচ্ছা বাড়ানোতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কফিতে যে ক্যাফেইন থাকে তা আপনার মিলনের মুড কার্যকর রাখে।
৬. জয়ফল: গবেষণায় দেখা গেছে, জয়ফল থেকে এক ধরনের কামোদ্দীপক যৌগ নিঃসৃত হয়। সাধারণভাবে এই যৌগটি স্নায়ুর কোষ উদ্দীপিত করে এবং রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। ফলে আপনার যৌন ইচ্ছা বৃদ্ধি পায়। আপনি কফির সাথে মিশিয়ে জয়ফল খেতে পারেন, তাহলে দুইটির কাজ একত্রে পাওয়া সম্ভব।
৭. চকলেট: ভালোবাসা ও মিলনের সঙ্গে সবসময়ই চকলেটের একটা সম্পর্ক রয়েছে। এতে রয়েছে ফেনিলেথিলামিন (পিইএ) ও সেরোটোনিন। এ দুটি পদার্থ আমাদের মস্তিষ্কেও রয়েছে। এগুলো মিলনের উত্তেজনা ও দেহে শক্তির মাত্রা বাড়াতে সহায়ক। পিইএ’র সঙ্গে অ্যানান্ডামাইড মিলে অরগাজমে পৌঁছাতে সহায়তা করে।
৮. কলা: কলার রয়েছে ভিটামিন এ, বি, সি ও পটাশিয়াম। ভিটামিন বি ও পটাশিয়াম মানবদেহের যৌনরস উৎপাদন বাড়ায়। আর কলায় রয়েছে ব্রোমেলিয়ানও। যা শরীরের টেস্টোস্টেরনের মাত্রা বাড়াতেও সহায়ক। আর সর্বোপরি কলায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণ শর্করা যা আপনার দেহের শক্তি বৃদ্ধি করে। ফলে দীর্ঘসময় ধরে দৈহিক মিলনে লিপ্ত হলেও আপনার ক্লান্তি আসবে না।
৯. ভিটামিন সি জাতীয় ফল: দৈহিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে চাইলে প্রতিদিন খাবার তালিকায় রঙিন ফলমূল রাখুন। আঙ্গুর, কমলা লেবু, তরমুজ, পিচ ইত্যাদি ফল দৈহিক ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য অত্যন্ত উপকারী। গবেষণায় দেখা গেছে, একজন পুরুষের প্রতিদিনের খাবার তালিকায় অন্তত ২০০ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি থাকলে তার স্পার্মের কোয়ালিটি উন্নত হয়। এসব ফলে মধ্যে তরমুজের প্রভাব বেশি। অনেকে মিলনের উদ্দীপক ওষুধ ভায়াগ্রার সাথে তরমুজের তুলনা করেছেন।
১০. গরুর মাংস: গরুর মাংসে প্রচুর জিঙ্ক থাকে। তাই আপনি মিলনকে আরও আনন্দময় করতে কম ফ্যাটযুক্ত গরুর মাংস খান। যেমন গরুর কাঁধের মাংসে, রানের মাংসে কম ফ্যাট থাকে এবং জিঙ্ক বেশি থাকে। এইসব জায়গার মাংসে প্রতি ১০০ গ্রামে ১০ মিলিগ্রাম জিঙ্ক থাকে।
১১. চা ঃ দিনে একবার মাত্র চা খেলেই শরীর এবং চোখের অন্দরে এমন কিছু পরিবর্তন হতে শুরু করে যে গ্লকোমার মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা প্রায় ৭৪ শতাংশ কমে যায়।
প্রসঙ্গত, গ্লকোমা রোগে আক্রান্ত হলে চোখের অন্দরে চাপ বাড়তে শুরু করে। ফলে অপটিক নার্ভ এত মাত্রায় ক্ষতিগ্রস্থ হয় যে দৃষ্টিশক্তি কমতে শুরু করে। আর সবথেকে ভয়ের বিষয় হল গত কয়েক বছরে ভারতের পাশাপাশি সারা বিশ্বে অন্ধত্বের সবথেকে বড় কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে গ্লকোমা। এমন পরিস্থিতিতে এই আবিষ্কার যে অনেকাংশেই আশার আলো জ্বালাবে, তা বলাই বাহুল্য! কিন্তু চা পানের সঙ্গে দৃষ্টিশক্তির উন্নতির সম্পর্কটা ঠিক  কোথায়? আসলে চায়ের মধ্যে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি প্রপাটিজ এংব নিউরো প্রোটেকটিভ কেমিক্যাল এক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। প্রতিদিন কয়েক কাপ লাল চা আপনাকে এই মারণ রোগের হাত থেকে বাঁচাতে পারে। আসলে এই পানীয়তে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট প্রপাটিজ সহ এমন কিছু উপাদান, যা লাং, প্রস্টেট, কলোরেকটাল, ব্লাডার, ওরাল এবং ওভারিয়ান ক্যান্সারকে দূরে রাখতে সাহায্য করে।



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 311        
   আপনার মতামত দিন
     স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা
সঠিক সেবার অভাব বিশ্বে প্রতি বছর মারা যায় ২৬ লাখ রোগী
.............................................................................................
ডেঙ্গুতে সরকারি হিসাবে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯৩
.............................................................................................
তথ্য প্রযুক্তি মনের কথা ‘শুনে’ অন্যকে জানাবে যে যš
.............................................................................................
স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা জেনে নিন কিডনি সুস্থ রাখতে ১০ টিপস
.............................................................................................
স্ট্রোকের কারণ, চিকিৎসা ও প্রতিরোধে করণীয় মস্তিষ্কে
.............................................................................................
ঘুরে আসতে পারেন রাতারগুল স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা কিডনির রোগের লক্ষণ ও নির্ণয়
.............................................................................................
সুস্থ রাখবে যেসব খাবার!
.............................................................................................
শীতের শুরুতে চুলের যত্ন নিবেন কিভাবে?
.............................................................................................
কিডনি রোগের কারণ, প্রতিরোধ ও চিকিৎসা
.............................................................................................
সাব সেক্টর কমান্ডার মেজর (অবঃ) জিয়াউদ্দিন গুরুতর অসুস্থ রাষ্ট্রীয়ভাবে চিকিৎসার দাবি
.............................................................................................
চিকনগুনিয়া পরবর্তী সমস্যা ও প্রতিকার
.............................................................................................
চিকুনগুনিয়া থেকে নতুন রোগ পলি আর্থ্রাইটিস হতে পারে।
.............................................................................................
ক্যান্সার আক্রান্তদের পাশে রবি
.............................................................................................
সা স্থ্য ও চি কি ৎ সা জন্ডিস এর কারণ ও প্রতিকার
.............................................................................................
শিশুর টনসিল সমস্যায় কী করবেন?
.............................................................................................
দেশের ২৭ শতাংশ নারী স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত
.............................................................................................
মহামারী রূপ নিচ্ছে হৃদরোগ
.............................................................................................
ওজন কমানোর পাঁচ উপায়
.............................................................................................
ভুঁড়ি পালাবে ৩০ দিনেই
.............................................................................................
ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধ করুন
.............................................................................................
ভাঙা-গড়ার খেলা নিয়েই জীবন
.............................................................................................
শিশুর খাবার
.............................................................................................
জেনে নিন শিশুর যত্ন
.............................................................................................
আপনার শিশুর যত্ন
.............................................................................................
আপনার শিশুর জন্য জেনে নিন
.............................................................................................
পোলিও নির্মূলে নতুন টিকা
.............................................................................................
আপনার শিশুর জন্য জেনে নিন মানসিক বৃদ্ধি ও বাচন ভঙ্গি
.............................................................................................
পোলিও
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

Editor & Publisher: Rtn. Md Reaz Uddin
Corporate Office
53,Modern mansion(8th floor),Motijheel C/A, Dhaka
E-mail:manabadhikarkhabar34@gmail.com,manabadhikarkhabar34@yahoo.com,
Tel:+88-02-9585139
Mobile: +8801978882223 Fax: +88-02-9585140
    2015 @ All Right Reserved By manabadhikarkhabar.com    সম্পাদকীয়    Adviser List

Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD