| বাংলার জন্য ক্লিক করুন

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   শেয়ার করুন
Share Button
   জাতীয়
  ১৯৭৮ চুক্তি অনুযায়ী রোহিঙ্গা বিষয়ে বাংলাদেশকেই ভুমিকা নিতে হবে
  18, March, 2017, 1:16:57:PM

এম,এম, আবু জাফর:

মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের বসবাসের বৈধতা ছিল বলে প্রভাবশালী ফোর্বস পত্রকা জানিয়েছে-মিয়ানমার একসময় রোহিঙ্গাদের বসবাসের বৈধতা দিয়েছিল বলে ১৯৭৮ সালের একটি গোপন দলিলে ইঙ্গিত মিলেছে। বাংলাদেশের সঙ্গে এ বিষয়ে ওই বছর মিয়ানমার একটি ‘প্রত্যাবাসন চুক্তি’ করেছিল। যুক্তরাষ্ট্রের প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয় ২০১৪ সালে এই ‘গোপন’ দলিল প্রকাশ করে। এশীয় একজন কূটনীতিক নাম প্রকাশ না করার শর্তে এই দলিলের গ্রহণযোগ্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ দেশটির সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপর কৌশলগত দমন-পীড়ন চালাচ্ছে। এতে তাদের অনেকে প্রাণে বাঁচতে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিচ্ছে। জাতিসংঘের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এই ‘জাতিগত নির্মূল’ প্রক্রিয়াকে সুস্পষ্টভাবে অবৈধ আখ্যা দিয়েছেন।

রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন বন্ধ করতে দেশে-বিদেশে বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন সরব হয়েছে। ইতিমধ্যে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের দুঃখ-দুর্দশা নিরসনের জন্য সে দেশের সরকারের প্রতি দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার-বিষয়ক বিশেষ র‌্যাপোর্টিয়ার ইয়াংঘি লি।তিনি বলেন রোহিঙ্গারা ধারণার চেয়েও সহিংসতার শিকার।

ঢাকা ও কক্সবাজারে চার দিনের সফর শেষে লি বলেন, ‘আমি যা ধারণা করেছিলাম তার কয়েকগুণ বেশি সহিংসতার মুখোমুখি হয়েছে রোহিঙ্গারা।’ তিনি ২০ থেকে ২৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকা ও কক্সবাজারে সফর করেন। সফর উপলক্ষে গতকাল ইয়াংঘি লি একটি বিবৃতি দেন।

বিবৃতিতে লি বলেছেন, গত বছরের ৯ অক্টোবরের পর যেসব রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে, তাদের অনেকের সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন। লি রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা শোনেন, যেমন- গলা কেটে ফেলা, গুলিবর্ষণ করা, বন্দী করে ঘরে আগুন দেওয়া, শিশুদের আগুনে ছুড়ে মারা, গণধর্ষণ ও অন্যান্য যৌন নির্যাতন। এসব অভিযোগ ছাড়াও লি আরও বলেন, ‘মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের ওপর বৈষম্যমূলক আচরণ করছে বলে প্রতীয়মান হয়।’ তিনি রোহিঙ্গাদের প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ ও সহিংসতা বন্ধের দ্রুত পদক্ষেপ নিতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

এ ছাড়া রোহিঙ্গাদের প্রতি সংঘটিত অপরাধের স্বাধীন ও নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি জানান।ইতিমধ্যে টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শিয়া বার্নিকাট। মার্কিন রাষ্ট্রদূত হ্নীলার লেদায় অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে আসেন। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন, আর্ন্তজাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) বাংলাদেশ অফিস প্রধান পে পে কেবি ছিদ্দিকী, বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. আবুজার আল জাহিদ, উপ অধিনায়ক মেজর আবু রাসেল সিদ্দিকী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: শফিউল আলমসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তারা। ক্যাম্প পরিদর্শনে এসে রাষ্ট্রদূত বার্নিকাট লেদাস্থ আইএমও‘র স্বাস্থ্য ক্লিনিকে কর্মরত এনজিও কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। পরে তিনি বস্তি পরিদর্শন করে মিয়ানমার হতে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের নির্যাতনে বর্ণনা শুনেন এবং নির্যাতনের শিকার রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলেন।শুধু আন্তর্জাতিক সংগঠনই নয় জাতিয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হকও রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেছেন।

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে গত নভেম্বরে রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় সেনা অভিযান শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত কমপক্ষে ২৭ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ দাবি করছে, রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে বসবাসের বৈধতা নেই। তাদের বাংলাদেশে চলে যাওয়া উচিত। কারণ, এই জনগোষ্ঠীর নৃতাত্ত্বিক উৎস সেখানেই। ইতিহাস বলছে, রোহিঙ্গারা অষ্টম শতাব্দী থেকেই রাখাইন রাজ্যের সঙ্গে যুক্ত। কিন্তু মিয়ানমার সরকার সেটা অস্বীকার করতে চাইছে। তারা ১৯৬২ সালের পর থেকে রোহিঙ্গাদের ওপর নতুন করে নিপীড়ন শুরু করে। তাদের রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন বন্ধ করে দেওয়ার চেষ্টা চালায়। ১৯৭৭ সালে মিয়ানমার নাগরিক নিবন্ধন শুরু করে এবং ‘বিদেশিদের’ চিহ্নিত করে। রোহিঙ্গাদের অভিযোগ, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর দমন-পীড়নের পাশাপাশি ধর্ষণ ও হত্যা শুরু করে। ১৯৭৮ সালের মে মাসের মধ্যে প্রায় দুই লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করে এবং সীমান্তের কাছাকাছি জাতিসংঘের বিভিন্ন আশ্রয়শিবিরে থাকতে শুরু করে।

যদিও মিয়ানমার প্রকাশ্যে দাবি করছে, রোহিঙ্গারা পালিয়ে গিয়ে প্রমাণ করেছে তারা দেশটির বৈধ নাগরিক নয়। তবে বাংলাদেশ ওই শরণার্থীদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানায়। জাতিসংঘও দেশটিকে এ বিষয়ে রাজি করানোর চেষ্টা করছে। রোহিঙ্গা সমস্যা মিয়ানমার কর্তৃক সৃষ্ট। এর সমাধান মিয়ানমারকেই করতে হবে। রোহিঙ্গারা অবশ্যই মিয়ানমার এর বৈধ নাগরিক।

রোহিঙ্গাদের মিয়ানমার এর নাগরিকত্ব প্রদান ও অন্যান্য মৌলিক অধিকার প্রদানের মাধ্যমেই এই সঙ্কটের সমাধান রয়েছে। সরকারের উচিৎ বিদেশী কূটনৈতিকদের রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবির গুলো পরিদর্শন করানো। যাতে করে রোহিঙ্গাদের উপর মিয়ানমারের সেনাদের বর্বর বর্নবাদী নির্যাতনের প্রমাণ তারা বিস্তত ভাবে পায়। আশ্রয় শিবিরগুলোতে রোহিঙ্গাদের দুঃখ-দূঃর্দশা ও বাংলাদেশের উপর এর দীর্ঘ মেয়াদী কুপ্রভাব বর্ননা করুন। রোহিঙ্গারা আমাদের দেশের অথনৈতিক, সামাজিক ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি স্বরুপ। আর সমস্যা সমাধানে মিয়ানমারের উপর চাপ সৃষ্টি করতে হবে। বিষয়টিকে দ্বিপাক্ষিক সমস্যা হিসাবে না দেখে আন্তর্জাতিক মহলে বিশেষ করে ওআইসি, আসিয়ান জোট ও জাতিসংঘে তুলে ধরতে হবে।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে আমাদের বাংলাদেশের নাগরিকরা দ্বিধাবিভক্ত। এক দল বলছে, রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেয়া ঠিক হবে না; আরেক দল বলছে, বাংলাদেশের উচিত রোহিঙ্গাদের বাংলাদশে আশ্রয় দেয়া। কিন্তু বাস্তবতা হল, বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া রোহিঙ্গা ইস্যুর কোনো সমাধান নয়। যেভাবেই হোক রোহিঙ্গাদেও বৈধ নাগরিকত্ব ফিরিয়ে দেয়াই হবে এর সঠিক সমাধান নতুবা এতদাঞ্চলে উগ্রপন্থার আগুন জ্বলে উঠা অসম্ভব নয়।



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 1356        
   আপনার মতামত দিন
     জাতীয়
তাজরিন ট্র্যাজেডির পাঁচ বছর স্মরণ করলো নিহতদের শোকার্ত সহকর্মীরা
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা, বিরল রোগে আক্রান্ত জহিরুল বাঁচতে চায়
.............................................................................................
জাতীয় মানবাধিকার কমিশন চেয়ারম্যানের এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকার
.............................................................................................
বেপরোয়া রোহিঙ্গা রামুতে এক বাঙালি নিহত ॥ উখিয়ায় আহত ৪
.............................................................................................
সাংবাদিক হত্যায় বিচার না হওয়া দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ দশম
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের কারণে বনের ক্ষতি দেড়’শ কোটি টাকা
.............................................................................................
ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারকে চাপ দিন : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
১০ মাসে ২,৯২৬টি সড়ক দুর্ঘটনা নিহত ৩,৬০৮ আহত ৭,৭৮৬
.............................................................................................
প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ
.............................................................................................
বহিঃবিশ্বে সুনাম অর্জন শত বছরের ভাসমান সবজী ক্ষেত
.............................................................................................
জাতীয় নির্মম নৃশংস !
.............................................................................................
মিয়ানমারে রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রতিবাদে বামাফা’র মানব বন্ধন
.............................................................................................
শিশুটিকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখা হয় জানালায় ॥ গ্রেফতার ১
.............................................................................................
প্রধান বিচারপতি অস্ট্রেলিয়া গেলেন
.............................................................................................
ডিজিটাল হেল্থ সার্ভিস বিষয়ে উদ্বুদ্ধকরন সভা
.............................................................................................
ভারতের সঙ্গে ৪৫০ কোটি ডলারের ঋণচুক্তি
.............................................................................................
নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের পাশে মানবাধিকার খবর ও উৎস রমনাপার্ক
.............................................................................................
বিশ্বের ১৮ নারী নেতার তালিকায় শেখ হাসিনা
.............................................................................................
চাষী নজরুল মরণোত্তর সম্মাননা পেলেন
.............................................................................................
সীমাখালীর চিত্রা নদীর উপর বেইলী ব্রিজের নির্মাণ কাজ শেষের পথে
.............................................................................................
ভাগডোমায় আশ্রায়ন প্রকল্প না করার দাবীতে মানববন্ধন আবু তাহের, দিনাজপুর
.............................................................................................
সড়ক দূর্ঘটনায় স্কুলছাত্র নিহত
.............................................................................................
এনডিপি’র ইফতার মাহফিলে খালেদা জিয়া আদালতের পরিবেশ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ
.............................................................................................
বিশ্ব পরিবেশ দিবসে প্রধানমন্ত্রী কোনোভাবেই সুন্দরবনের ক্ষতি নয়
.............................................................................................
দ্বিতীয়বার আনন্দ পুরষ্কার পেলেন ড. আনিসুজ্জামান
.............................................................................................
বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী ধর্ষণ অবশেষে ধর্ষক সাফাত ও সাদমান গ্রেফতার
.............................................................................................
কক্সবাজারকে আন্তর্জাতিক পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলব- প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
সিংড়ায় মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাই সম্পন্ন
.............................................................................................
এক নজরে ঢাকা-দিল্লী ২২ চুক্তি
.............................................................................................
নতুন বছরে দেশ আরও এগিয়ে যাবে... প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
মধ্যরাতে ৬ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে ফেসবুক
.............................................................................................
‘অটিজম চ্যাম্পিয়ন’ সায়মা ওয়াজেদ
.............................................................................................
আইপিইউ সম্মেলন ঘিরে নিরাপত্তার চাদরে রাজধানী
.............................................................................................
শেখ হাসিনার ভারত সফর : সতর্ক দৃষ্টি রাখছে চীন
.............................................................................................
জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা বুধবার
.............................................................................................
১৯৭৮ চুক্তি অনুযায়ী রোহিঙ্গা বিষয়ে বাংলাদেশকেই ভুমিকা নিতে হবে
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

Editor & Publisher: Rtn. Md Reaz Uddin
Mobile:+88-01711391530, Email: md.reaz09@yahoo.com Corporate Office
53,Modern mansion(8th floor),Motijheel C/A, Dhaka
E-mail:manabadhikarkhabar@gmail.com,manabadhikarkhabar34@yahoo.com,
Tel:+88-02-9585139
Mobile: +8801978882223 Fax: +88-02-9585140
    2015 @ All Right Reserved By manabadhikarkhabar.com    সম্পাদকীয়    Adviser List

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]